আইএস সদস্য ইব্রাহিম ও জান্দালের খোঁজ নিচ্ছে পুলিশ

নিউজ ডেস্ক, সিটিজিবার্তা২৪ডটকম

শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল ২০১৬

 

আইএস সদস্য ইব্রাহিম ও জান্দালের খোঁজ নিচ্ছে পুলিশ

আইএস সদস্য ইব্রাহিম ও জান্দালের খোঁজ নিচ্ছে পুলিশ।

আইএস-এর মুখপত্র মাসিক ‘দাবিক’ পত্রিকায় প্রকাশিত  আইএস-এর কথিত বাংলাদেশ প্রধান শেখ আবু ইব্রাহিম আল-হানিফ ও নিহত আবু জান্দাল আল বাঙালির বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। পুলিশের ধারণা, এ সব তাদের ছদ্মনাম। বাংলাদেশ কোনও আইএস-এর ঘাঁটি নেই। দেশে যে ছোটছোট উগ্রবাদী ও জঙ্গি সংগঠন রয়েছে, সেগুলো নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলেও জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

শুক্রবার সকালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান মিয়া তার ধানমণ্ডির বাসভবনে সাংবাদিকদের বলেন, আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, আইএসের কোনও ঘাঁটি বাংলাদেশে নেই। কোনও সংগঠন বাংলাদেশে নেই। আইএসকে হয়তো অল্প দুই-একজন বিশ্বাস করতে পারেন। কোনও বিদেশি মতাদর্শের লোক এই দেশে ঘাঁটি গেড়ে অন্য দেশে আক্রমণ করবেন, তা হবে না।

যাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে, তাদের বিষয় নিয়েও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সন্দেহ রয়েছে। তিনি বলেন,বাংলাদেশে জঙ্গি সংগঠন আইএসের সাংগঠনিক কোনও অস্তিত্ব নেই। তবে বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ প্রতিষ্ঠার জন্য দেশি ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র রয়েছে।

এদিকে, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজমের (সিটি) এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, আইএস বলতে বাংলাদেশে কোনও কিছুর অস্তিত্ব নেই। দেশে জেএমবি ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিম দুটি জঙ্গি সংগঠন মাঝে-মাঝে তৎপর হওয়ার চেষ্টা করে। তবে, দুটি জঙ্গি সংগঠনই আমাদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তিনি বলেন, দুই-চার দেশ থেকে পালিয়ে গিয়ে আইএস-এ যোগ দেওয়ার খবর পাওয়া গেছে, তবে তার অর্থ এই নয় যে, দেশে আইএস আছে।

পুলিশের এই কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশ সম্পর্কিত খবর প্রকাশিত হওয়ায় এটি তদন্ত করবে সিটি। তবে তাদের অস্তিত্ব নিয়ে আমাদের সন্দেহ রয়েছে। তারা ছদ্মনাম প্রকাশ করে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের দক্ষিণ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাশরুকুর রহমান খালেদ বলেন, আমরা যত মামলা এখন পর্যন্ত তদন্ত করেছি, তার একটিতেও আইএস-এর জড়িত থাকার কোনও প্রমাণ পাওয়া পাইনি। এসব গুজব। এ সব বানানো।

এদিকে, বাংলাদেশের কথিত এই দুই আইএস সদস্যের বিষয়ে র‌্যাবের মুখপাত্র মুফতি মাহমুদ খান বলেন, বিষয়টা আমাদের কাছে এখনও পরিষ্কার নয়। তারা কী দাবি করলেন, তা মুখ্য নয়। তবে বাংলাদেশে আইএস-এর কোনও ঘাঁটি নেই। যদি কারও নাম এসে থাকে অবশ্যই তাদের বিষয় র‌্যাব খোঁজ খবর নেবে।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, র‌্যাব জঙ্গি দমনে সবচেয়ে বড় সফলতা দেখিয়েছে। র‌্যাব জঙ্গি দমনে কাজ করে যাচ্ছে। র‌্যাব অবশ্যই তাদের বিষয়েও খোঁজ খবর নেবে।

আইএসের প্রকাশনা ‘দাবিক’-এর ১৪তম সংখ্যায় কথিত আইএসের বাংলাদেশ প্রধান শেখ আবু ইব্রাহিম আল-হানিফের সাক্ষাৎকার প্রকাশ করে। এছাড়া, বুধবার প্রকাশিত দাবিক-এর ওই সর্বশেষ সংখ্যায় জানানো হয়েছে দাবিক-এ আবু জান্দাল আল বাঙালি নামের এক ব্যক্তির প্রোফাইল প্রকাশিত হয়েছে। দাবিক বলছে, জান্দাল সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে আইন ইশার যুদ্ধে প্রাণ হারিয়েছেন। দাবিকের দাবি অনুযায়ী জান্দাল বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার এক সমৃদ্ধ পরিবারের সন্তান, তার সামরিক সংশ্লিষ্টতা ছিল। জিন্দাল আইএসের প্রশিক্ষণ শিবিরে যোগ দেওয়ার পর থেকেই শহিদি মৃত্যুকে বরণ করতে প্রস্তুত ছিলেন। দাবিকের দাবি অনুযায়ী, জিন্দাল একজন একনিষ্ঠ জিহাদি ছিলেন। বাংলাদেশে জিহাদের পক্ষে একনিষ্ঠ ভূমিকা পালন করেছিলেন তিনি।

দাবিক পত্রিকায় প্রকাশিত খবরের সমালোচনা করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশের জঙ্গি সংগঠনের সহযোগিতায় পার্শ্ববর্তী দেশের আক্রমণের সুযোগ দেওয়া হবে না। সংখ্যালঘুদের আক্রমণ আমাদের ইসলাম ধর্ম প্রশ্রয় দেয় না। কাজেই যারা এগুলো বলে, তারা ইসলাম ধর্মের তো নয়ই, তারা মানবতার শত্রু। আমি আগেও বলেছি, এখনও বলছি, এগুলো আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র।

তথ্য সূত্র- বাংলা ট্রিবিউন

আপনার মতামত দিন....

এ বিষয়ের অন্যান্য খবর:


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image