আবার হার টেন্ডুলকারের

বৃহস্পতিবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৫

shan warn & sachin thendulkr

সিটিজিবার্তা২৪ডটকমঃ   নিউইয়র্কে শেন ওয়ার্নের দলে কাছে প্রথম প্রদর্শনী টি-টোয়েন্টিতে হেরে গিয়েছিল শচীন টেন্ডুলকার। হিউস্টনেও নিজের ভাগ্য বদলাতে পারলেন না তিনি। দ্বিতীয় ম্যাচে তাঁর দল হেরেছে ৫৭ রানের বড় ব্যবধানেই। প্রথমে ব্যাট করে ওয়ার্ন ওয়ারিয়র্সের ৫ উইকেটে করা ২৬২ রানের বিশাল সংগ্রহ তাড়া করতে নেমে শচীনস ব্লাস্টার্সের ইনিংস শেষ হয়েছে ২০৫ রানেই।

টসে জিতে ফিল্ডিং বেছে নিয়েছিলেন টেন্ডুলকার। কিন্তু তাঁর দলের বোলাররা ভালো করতে পারেননি মোটেও। শোয়েব আকতার, গ্লেন ম্যাকগ্রা, মুত্তিয়া মুরালিধরন, শন পোলকের মতো বোলাররা ছিলেন বড্ড খরচে। গ্রায়েম সোয়ান, ল্যান্স ক্লুজনাররাও খুব ভালো করতে পারেননি। বীরেন্দর শেবাগ তো এক ওভার বল করেই দিয়েছেন ১৯ রান।

শেন ওয়ার্নের দলের ব্যাটসম্যানরা ছিলেন দুর্দান্ত। মাইকেল ভন আর ম্যাথু হেইডেনের উদ্বোধনী জুটিতে রান আসে ৫২। ভন ২২ বলে ৩০ আর হেইডেন মাত্র ১৫ বলে ৩২ রান করে দলকে এনে দেন উড়ন্ত সূচনা। এই দুজনকে অনুসরণ করে বাকিরা নিজেদের চেনান নতুন করেই। কুমার সাঙ্গাকারার ব্যাট থেকে আসে ৩০ বলে ৭০ রান। জ্যাক ক্যালিস ২৩ বলে ৪৫ আর রিকি পন্টিং ১৬ বলে ৪১ রান করেন। শেষ দিকে অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস ৬ বলে ১৯ আর জন্টি রোডস ৮ বলে ১৮ রান করে দলের রান নিয়ে যান ২৬২-এ।

জবাব দিতে নেমে মাত্র ২০ রানেই শেবাগের উইকেট হারায় শচীনস ব্লাস্টার্স। শেবাগ অবশ্য মাত্র ৮ বলে ১৬ রান করেছিলেন। টেন্ডুলকার ২০ বলে ৩৩ করে শিকার হন সাকলাইন মুশতাকের। সৌরভ গাঙ্গুলি ফেরেন ১২ বলে ১২ করে। ব্রায়ান লারাও ১৯ রানের বেশি করতে পারেননি। এরপর মাহেলা জয়াবর্ধনে মাত্র ৫ রানে আউট হলে শোচনীয় হারের শঙ্কায় পড়ে গিয়েছিল টেন্ডুলকারের দল।
শেষ দিকে শন পোলক ২২ বলে ৫৫ রান করে খেলায় প্রতিদ্বন্দ্বিতা নিয়ে আসেন। ল্যান্ড ক্লুজনারও করেন ২১ রান। সোয়ান আর মুরলিধরন শেষ অবধি অপরাজিত থাকেন যথাক্রমে ২২ ও ৮ রান করে।

ওয়ার্নের দলে বল হাতে রাজা ছিলেন অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস। তিনি ৭০ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট। সাকলাইন মুশতাক ৩ ওভার বল করে মাত্র ১২ রানে তুলে নেন ২ উইকেট। এ ছাড়া একটি করে উইকেট পান অজিত আগারগাঁও ও ক্যালিস। সূত্র: মটরস্পোর্টস-২।

আপনার মতামত দিন....

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.