কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

রোববার, ২৫ নভেম্বর ২০১৮

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

কক্সবাজার : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসন মহাজোটের শরিক দল জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দিচ্ছে আওয়ামী লীগ।

এই আসনে মহাজোটের প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে লড়বেন জাতীয় পার্টির সাবেক মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু। এ কারণে বাদ পড়েছেন এই আসনের আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল।

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর রোববার দুপুর থেকে সদর ও রামু উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় আন্দোলন শুরু করেছে তার সমর্থকেরা। এমনকি, জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে কলাগাছ অভিহিত করে বিভিন্ন জায়গায় কলাগাছ নিয়ে আন্দোলনে নেমেছে।

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে নেতাকর্মীদের কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

দুপুরে সদর উপজেলার ঈদগাঁও স্টেশনে সড়কের দুইপাশে কলাগাছ রোপন করে আন্দোলন শুরু করেছে কমলপন্থি নেতা-কর্মী ও সমর্থকেরা। সেখানে অনেকগুলো কলাগাছ রোপন করে প্রতিবাদ জানিয়েছে তারা। তারা বহিরাগত জাতীয় পার্টির প্রার্থীকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেছে।

ঈদগাঁও স্টেশনের আন্দোলনে নেতৃত্ব দিয়েছেন কক্সবাজার সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি হুমায়ুন কবির চৌধুরী হিমু ও সদর যুবলীগের সহ-সভাপতি মিজানুল হক।

একই সময়ে রামুতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে কমল সমর্থকেরা। এতে নেতৃত্ব দিয়েছেন কমলের আস্তাভাজন হিসেবে পরিচিত রামু উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজুল আলম, জেলা পরিষদের সদস্য ও সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শামসুল আলম, রামু উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নীতিশ বড়ুয়া, ইউপি চেয়ারম্যান ইউনুছ ভুট্টু, ঈদগড় ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ ভুট্টু প্রমুখ।

বিক্ষোভ মিছিল থেকে তারা বলেন, কমলকে ছাড়া অন্য কাউকে মনোনয়ন দিলে মেনে নেওয়া হবে না। এই আসনে কমলের বিকল্প নেই। তাই সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের দাবি জানিয়েছে তারা।

কমলকে মনোনয়ন না দেওয়ার প্রতিবাদে কলাগাছ রোপন ও বিক্ষোভ

কমলের ঘনিষ্ঠজনেরা জানিয়েছেন, কমলকে মনোনয়ন তালিকা থেকে বাদ দেওয়ায় সদর ও রামুর বিভিন্ন জায়গায় কলাগাছ আন্দোলন গড়ে তুলেছে তার সমর্থকেরা। আন্দোলন ধীরে ধীরে তীব্র হচ্ছে।

২০১৪ সালের নির্বাচনে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন সাইমুম সরওয়ার কমল। গত পাঁচ বছরে ব্যাপক বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন তিনি।

সর্বশেষ কয়েক দিন আগে জেলা জামায়াতের সেক্রেটারি জি এম রহিমুল্লাহর নামাজে জানাজায় তার পরিবারের জন্য জমি বরাদ্দ এবং জি এম রহিমুল্লাহ’র নামে একটি সড়কের নামকরণের ঘোষণা দেন সাংসদ কমল।

একজন জামায়াত নেতার নামে সড়কের নামকরণের ঘোষণা দেওয়ার পর থেকে সমালোচনার ঝড় উঠেছে কমলের বিরুদ্ধে। জামায়াতপ্রেমী কমলকে মনোনয়ন না দিতে খোদ তার পরিবার থেকে দাবি ওঠে।

আপনার মতামত দিন....

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.