ডামি আসামি দিয়ে জামিন !

মঙ্গলবার, ১৫ মার্চ ২০১৬

sirajgonjসিটিজিবার্তা২৪ডটকম : সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার স্কুলছাত্র কোপানোর ঘটনার মামলায় আদালতে ডামি আসামি হিসেবে আপন মামাতো ভাইকে হাজির করে গোপনে জামিন নিলেন আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে আলমগীর হোসেন সরকার।

আদালতের সাথে অভিনব প্রতারণা করে জামিন নেয়ায় এলাকায় নানা গুঞ্জন ও মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, উল্লাপাড়া মোমেনা আলী বিজ্ঞান স্কুলের ৭ম শ্রেনীর ছাত্র কামরুল হাসান অন্তর (১৩) বাই-সাইকেল যোগে গত ২ মার্চ বিকেলে স্কুল থেকে শ্যামলীপাড়ার বাড়ি ফিরছিল। এ সময় উল্লাপাড়া পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আহসান আলী সরকারের ছেলে উপজেলা দলিল লেখক সমিতির সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন সরকারও ফিরছিলেন। এ সময় অন্তরের সাইকেলের ধুলা আলমগীরের গায়ে লাগায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে তাকে বেধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায়ে পকেটে থাকা চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কপালের ডান পাশে আঘাত করে। গুরুতর আহত অবস্থায় অন্তরকে প্রথমে উল্লাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল ও পরে সিরাজগঞ্জ আড়াই’শ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আলমগীরকে একক আসামি করে পরদিন মামলা রজু করেন অন্তরের বাবা শহিদুল ইসলাম মিলন।

এদিকে, মামলা হলেও প্রভাবশালী আ’লীগ নেতার ছেলে হওয়ার কারনে আলমগীরকে এতদিনেও খুঁজে পায়নি পুলিশ। মিডিয়ায় এ নিয়ে পরপর সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় পুলিশের পাশাপাশি আলমগীর চাপে পড়েন।

গত ১০ মার্চ বৃহস্পতিবার আলমগীর তার আপন মামাতো ভাই উল্লাপাড়ার বড়-পাঙ্গাসী ইউনিয়নের চন্দ্রগাঁতী-গয়হাট্টা গ্রামের খন্দকার আল মাহমুদের ছেলে আনোয়ার হোসেনকে ডামি আসামি (আলমগীর) সাজিয়ে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিসেট্র মোঃ শরিফুল হকের আদালতে হাজির করে। সিরাজগঞ্জ জেলা আইনজীবি সমিতির যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক অ্যাডভোকেট একে ফজলুল হকের মাধ্যমে আনোয়ারকে আলমগীর সাজিয়ে জামিনের আবেদন করা হয়। কিন্তু, বিচারক তার জামিন না মঞ্জুর করে ডামি আলমগীর সরূপ আনোয়ারকে জেলা কারাগারে পাঠায়।

অন্যদিকে, আলমগীরের ডামি আসামি আনোয়ারকে জেলা কারাগারে প্রেরনের বিষয়টি ফাঁস হয়ে গেলে ছেলের জামিনের জন্য উল্লাপাড়া পৌর আ’লীগ সভাপতি আহসান আলী সরকার অবশেষে সাংসদ তানভীর ইমামের দারস্থ হন।

শনিবার সন্ধ্যায় এমপি তার নিজ বাড়িতে বাদী-বিবাদীকে হাজির করে বিষয়টির মিমাংসা করেন বলে জানা গেছে। এ সময় উল্লাপাড়া থানার ওসিও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। রাতেই বাদী কর্র্তৃক আপোষনামা নিয়ে পরদিন রোববার আদালতে সেটি জমা দেয়ার পরই ডামি আলমগীর হিসেবে আনোয়ারের জামিন হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা একই থানার পরিদর্শক খাজা মোঃ গোলাম কিবরিয়া বলেন, ডামি আসামি দিয়ে আলমগীর জামিন পেয়েছে- যা আমিও শুনেছি। অভিযুক্ত আলমগীর জানান, এ বিষয়ে আপোষ-মিমাংসা হয়ে গেছে।

শীর্ষ নিউজ

 

আপনার মতামত দিন....

এ বিষয়ের অন্যান্য খবর:


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.