পালিয়ে গেলেন বর, বাল্য বিয়ে থেকে বাঁচল কিশোরী

Sunday,22 April 2018

ctgbarta24.com

মোহাম্মদ মামুন, টেকনাফ ঃ কক্সবাজারের টেকনাফে স্থানীয় উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাল্য বিবাহ বন্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

রোববার ( ২২ এপ্রিল ) দুপুর ১২টার দিকে টেকনাফ উপজেলার নাজির পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হাসানের নির্দেশে উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভূমি ) প্রণয় চাকমার নের্ত্বৃত্বে ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার মোঃ আলমগীর কবিরের সহযোগীতায় বাল্যবিবাহটি বন্ধ করা হয়।

জানা যায়, গোপনে সদরের নাজির পাড়ায় হোসন আহমদের মেয়ে অাজিদা খাতুন (১৪) ও হাসু মিয়ার ছেলে(৩০) ইব্রাহিমের সাথে বাল্যবিবাহের আয়োজন চলছিল।বিষয়টি জানতে পেরে উপজেলা প্রশাসন বিয়ে বাড়ীতে গেলে বর পালিয়ে যায়। পরে মেয়ের বাবাকে পাওয়ায় তাকে ২০ দিনের কারাদন্ড দিয়ে সতর্ক করে দেওয়া হয়।

এ সময় টেকনাফ মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই ) সাইদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় মেম্বার এনামুল হক বলেন, আমি এ ব্যাপারে কিছুই জানিনা। তবে খবর নিয়ে দেখলাম বাল্যবিবাহ করতে যাওয়া ঔ ব্যক্তি এর আগে এই মেয়ের বড়বোনকে বিয়ে করেছিল। পরে সে মারা যাওয়ায় এখন তার ছোট বোনকে গোপনে বিয়ে করার চেষ্টা করছিল বলে জানতে পেরেছি ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রবিউল হাসান বলেন, সীমান্তের শহর টেকনাফকে বাল্যবিবাহ মুক্ত করার অঙ্গীকার নিয়ে কাজ করার ধারাবাহিকতায় বার্তা পাওয়ার সাথে সাথে বিয়ের আসরে গিয়ে বাল্যবিবাহ বন্ধ করে মেয়ের বাবাকে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

আপনার মতামত দিন....

এ বিষয়ের অন্যান্য খবর:


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.