প্রধানমন্ত্রী কক্সবাজারে মেরিন ড্রাইভ সড়ক ছাড়াও ৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন

বৃহস্পতিবার,০৪ মে ২০১৭

সিটিজিবার্তা২৪ডটকম

ডেস্ক সংবাদ :৬ মে শনিবার প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে ইতিমধ্যে কক্সবাজার জেলার সর্বত্র আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সর্বস্থরের সাধারণ মানুষের মাঝে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। কক্সবাজারের সচেতন মহলের মতে সারা দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিতার চেয়ে কক্সবাজারের উন্নয়ন ভিন্ন। এখানে বেশ কিছু মেঘা প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে যা আগামী দিনের কক্সবাজারকে বদলে দেবে। এবং এর পেছনে সবচেয়ে বেশি অবদান বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। তাই উনাকে স্বাগত জানাতে কারো উৎসাহের কমতি নেই। এদিকে ৬ মে সফরেও থাকছে কক্সবাজারবাসীর জন্য বেশ কয়েকটি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন এবং ভিত্তি প্রস্থর।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, এবারের সফরে প্রধানমন্ত্রী বহুল প্রত্যাশিত মেরিন ড্রাইভ সড়ক ছাড়াও ৭ টি প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন একই সাথে ৯ টি প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্থর কববেন তিনি।
উদ্বোধন হওয়ার প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রথমেই সকাল ৯ টা ৪০ মিনিটে কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের সম্প্রসারিত রানওয়েতে সুপরিসর ৭৩৭-৮০০ বোয়িং বিমান চলাচল উদ্বোধন করবেন। পরে বেলা ১১ টায় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের অধিনন্থ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী কর্তৃক সম্প্রতি সমাপ্ত কক্সবাজার টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের উদ্বোধন করবেন। এর পরে ইনানী বে-ওয়াচ রিসোর্টে নামাজ ও মধ্যহ্ন বিরতি করবেন তিনি। পরে বেলা ২ টা ৪৫ মিনিটে কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে উপস্থিত হয়ে জনসভাস্থলের পাশেই বিভিন্ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তি প্রস্থর করবেন। যে সব প্রকল্প উদ্বোধন করবেন সে গুলো হলো-কক্সবাজার সরকারি মেডিকেল কলেজের একাডেমিক ভবন উদ্বোধন, কক্সবাজার সরকারি মহিলা কলেজের ১০০ শয্যা বিশিষ্ট ছাত্রী নিবাস উদ্বোধন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের একাডেমিক ভবন কাম এক্সামিনেশন হল উদ্বোধন, কক্সবাজার সরকারি কলেজের ১০০ শয্যা বিশিষ্ট ছাত্রী নিবাস উদ্বোধন, উখিয়া বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব দ্বিতল একাডেমিক ভবন উদ্বোধন, মহেশখালী আনোয়ারা গ্যাস সঞ্চালন পাইপ লাইন উদ্বোধন।
একই সাথে ৯ প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্থত স্থাপন করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, প্রকল্পগুলো হল-কক্সবাজার বিমানবন্দর উন্নয়ন প্রকল্প (১ম পর্যায়) এলজিইডি অংশ এর আওতায় কক্সবাজার জেলার সদর উপজেলাধীন নদীর উপর খুরুশকুল ঘাটে ৫৯৫.০০ মিটার দৈর্ঘ্য পিসি বক্সগার্ড ব্রিজএর ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এর ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন, কক্সবাজার আইটি পার্ক এর ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন, এক্সিলারেট এনার্জি বাংলাদেশ লিমিটেড কর্তৃক নির্মিতব্য মহেশখালী ভাসমান এনএলজি টার্মিনাল স্থাপন, সামিট এলএনজি টার্মিনাল কোঃ প্রাঃ লিঃ কর্তৃক মহেশখালীতে দ্বিতীয় ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল স্থাপন, বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের অধীন একটি এসপিএম (ইনস্টলেশন অব সিংগেল পয়েন্ট মুরিং) প্রকল্পের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন, নাফ ট্যুেিজম পার্কের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন, কুতুবদিয়া কলেজের একাডেমিক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অফিস ভবনের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন।
এরপরে বিকাল ৩ টায় কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত বিশাল জনসভায় যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। জনসভা শেষে সাড়ে ৪ টায় বিশেষ বিমান যোগে কক্সবাজার ত্যাগ করবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব-১ কাজী নিশাত রসুল স্বাক্ষরিত পত্রে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি।
এদিকে প্রধানমন্ত্রীর কক্সবাজার সফরকে কেন্দ্র করে সর্বত্র বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা বিরাজ করছে। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীর জনসভাকে ঘিরে চলছে বেশ তৎপরতা।
এব্যাপারে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড, সিরাজুল মোস্তফা বলেন আমরা প্রায় ১ লাখ মানুষের সমাগম করতে চাইছি, সে জন্য জেলা প্রতিটি উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড থেকে আমাদের নেতাকর্মীরা আসার জন্য তারা নিজেরাই প্রস্তুতি নিয়েছে। এছাড়া কক্সবাজারকে ঘিরে প্রধানমন্ত্রীর অভুতপূর্ব উন্নয়ন কর্মকান্ডের কারনে জেলার সাধারণ মানুষও ব্যাপক হারে জনসভায় যোগ দেবেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এবারের জনসভা স্বরণকালের সবচেয়ে বড় জনসভা হবে।
এদিকে কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন জানান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে ঘিরে আমাদের সব ধরনের প্রস্ততি প্রায় শেষ পর্যায়ে।

আপনার মতামত দিন....

এ বিষয়ের অন্যান্য খবর:


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.