এই মাত্র:

সিলেটে মুসল্লি-ইসকন ভক্তদের মধ্যে সংঘর্ষ

আহমেদ নওশাদ, সিটিজিবার্তা২৪ডটকম

শুক্রবার, ২ সেপ্টেম্বর ২০১৬

sylhet-songorsho

সিলেট: জুমার নামাজের সময় বাদ্য বাজানো ও কীর্তন গাওয়া নিয়ে সিলেটে ইসকনভক্ত ও মুসল্লিদের মধ্যে ইটপাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে। মন্দিরের গেট বন্ধ থাকায় এবং পুলিশের উপস্থিতির কারণে বড় ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়ানো গেছে।

আজ শুক্রবার (২ সেপ্টেম্বর) জুমার নামাজের পর নগরীর কাজল শাহ এলাকায় শ্রী শ্রী রাধা মাধব জিউ ইসকন মন্দিরের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বাইরে থেকে মুসল্লিরা ও ভেতর থেকে ইসকন মন্দিরের ভক্তরা ইটপাটকেল ছোড়েন।

ঘটনাস্থল থেকে অন্তত ১৫ জনকে আটক করা হয় বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে পুলিশ। পাল্টাপাল্টি ঢিল ছোড়া ও পুলিশের অভিযানের সময় সাবেক নারী কাউন্সিলরসহ অন্তত সাতজন আহত হয়েছেন। তাঁদের ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

sylhet-musolli-iskon-songorsho

আহতরা হচ্ছেন সাবেক কাউন্সিলর জেবুন্নাহার শিরীন (৫৮), সাজু আক্তার (২৮), বাবুল আহমেদ (৪৩), সাঈদ (২৪), আরিফ (২২), সুমন (১৭) ও রাজেন্দ্র দাশ।

সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মনোজ চৌধুরী জানান, একজন ছাড়া বাকিরা পুলিশের ছোড়া রাবার বুলেটবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। তাঁদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সিলেট ইসকন মন্দিরের ইয়ুথ ফোরামের সমন্বয়ক দেবর্ষি শ্রীবাস জানান, মন্দিরে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও কীর্তন চলছিল। হঠাৎ বাইরে থেকে ঢিল ছোড়া হলে তাঁরা সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। নামাজের সময় অনুষ্ঠান ও বাদ্যযন্ত্র বাজানোর অভিযোগে তুলে মন্দির লক্ষ্য করে ঢিল ছোড়া হয় বলে দাবি করেন তিনি।

Muslim-Hindu-Songorsho-sylhet

কয়েকজন এলাকাবাসী দাবি করেন, নামাজের সময় গান বা কীর্তন বন্ধ রাখার জন্য বারবার অনুরোধ করা হলেও মন্দির কর্তৃপক্ষ সে অনুরোধ শোনেনি। আজও নামাজ শেষে তাদের সঙ্গে কথা বলতে গেলে মন্দিরের লোকজন মুসল্লিদের ওপর হামলা চালায় এবং ইটপাটকেল ছোড়ে। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

সিলেট মহানগর পুলিশের উপকমিশনার ফয়সল মাহমুদ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে নামাজের সময় গান বাজানোর কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে মন্দিরের গেট বন্ধ থাকায় কোনো ক্ষতি হয়নি। বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে।

আপনার মতামত দিন....

এ বিষয়ের অন্যান্য খবর:


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।


CAPTCHA Image
Reload Image